Templates by BIGtheme NET
১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৩ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৮ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী

টাইগারদের নিয়ে যা বললেন ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস

প্রকাশের সময়: মে ২২, ২০১৯, ২:৩৩ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ বেশ জানান দিয়েই বিশ্বকাপে এসেছে। শেষ চার ম্যাচে অসাধারণ খেলে এবং প্রথমবারের মত অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়ে শিরোপা জিতেই ইংল্যান্ডে পৌঁছেছে মাশরাফী বাহিনী। বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ কোয়ার্টার ফাইনাল খেলা মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার দল বিশ্বকাপের এ আসরে সেমিফাইনালে উঠতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। তাদের সাম্প্রতিক ফর্ম প্রতিষ্ঠিত যে কোনো দলের জন্য ভয়ংকর ইঙ্গিত দিচ্ছে। বুধবার এক প্রতিবেদনে এমনটাই বলেছে ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস।

প্রতিবেদনে বাংলাদেশের প্রশংসা করে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশ প্রমাণ করেছে, তারা ক্রিকেটের যে কোনো পরাশক্তিকে পরাজিত করতে পারে। দুই বছর আগে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের মতো শক্তিশালী গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমি-ফাইনালে ওঠা তারই উদাহরণ।’

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয় ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনাল খেলার কথা। ২০১৫ সালের এপ্রিল থেকে ২০১৬ সালের অক্টোবর পর্যন্ত বাংলাদেশ ৫টি ওয়ানডে সিরিজ খেলেছে। ভারত, পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলের বিপক্ষে তাদের উন্নতি ছিল চোখে পড়ার মতো। যদিও সিরিজগুলো হোম সিরিজ ছিল, তবুও এখানে টাইগাররা উত্তরোত্তর উন্নতি করেছে।

বাংলাদেশ র‌্যাংকিং, অর্থ উপার্জনের পাশাপাশি স্বয়ংক্রিয়ভাবে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি এবং বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে এই সিরিজগুল জয়ের মাধ্যমে। ২০১৮ সালে বাংলাদেশ ২০টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে। যার মধ্যে ১৩টি ম্যাচেই জয়লাভ করেছে। বাংলাদেশ র‌্যাংকিংয়ে বর্তমানে সপ্তম স্থানে অবস্থান করছে। অভিজ্ঞতার ঝুলি পরিপূর্ণ করেই বিশ্বকাপে মিশনে পঞ্চপান্ডব তথা মাশরাফী,সাকিব,তামিম, মুশফিক ও রিয়াদরা।

মাশরাফী জানিয়েছেন, সেমিফাইনাল তাদের লক্ষ্য। তবে ১০ জাতির রবিন রাউন্ড পদ্ধতিতে কাজটা খুব একটা সহজও নয়। ইংল্যান্ডের উদ্দেশ্যে দেশ ত্যাগের আগে মাশরাফী বলেন, ‘আমি মনে করি, এই মুহুর্তে সেমি-ফাইনালে যাওয়া আমাদের বড় চ্যালেঞ্জ, কিন্তু কোনো কিছুই অসম্ভব নয়’।

‘অবশ্যই এটা সম্ভব, কিন্তু কঠিন। আগে গ্রুপ পর্যায়ে এক বড় দলকে হারাতে পারলেই নিশ্চিন্ত থাকা যেত। কারণ তাদের পক্ষে পরে ‘কামব্যাক’ করা কঠিন ছিল। কিন্তু রবিন রাউন্ড পদ্ধতিতে সবারই ‘কামব্যাক’ করার সুযোগ থাকবে। আমাদের এই বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

four × three =