Templates by BIGtheme NET
১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৩১ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৫ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী

এসএসসির ফল পুনর্নিরীক্ষা
নতুন করে জিপিএ ৫ পেল ৪১৫ জন, ফেল থেকে ৬ জন

প্রকাশের সময়: জুন ২, ২০১৯, ২:২৫ অপরাহ্ণ

এসএসসি ও সমমানের পুনর্নিরীক্ষার ফল গতকাল শনিবার প্রকাশিত হয়েছে। নিজ নিজ শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে এই ফল প্রকাশ করা হয়। পুনর্নিরীক্ষায় যাদের ফল পরিবর্তন হয়েছে তারা ৩ ও ৪ জুন অনলাইনে কলেজ ভর্তি আবেদন সংশোধন করতে পারবে। অর্থাৎ পরিবর্তিত ফল অনুযায়ী নতুন করে কলেজ পছন্দ করতে পারবে।

শনিবার প্রকাশিত এবারের এসএসসি পরীক্ষার পুনঃনিরীক্ষার ফলে দেখা গেছে, ৯টি শিক্ষা বোর্ডে ২ হাজার ৩১৯ জন শিক্ষার্থীর রেজাল্ট পরিবর্তন হয়েছে। এর মধ্যে নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪১৫ জন। বাকিদের জিপিএ বেড়েছে। ফেল থেকে পাস করেছে ঢাকা বোর্ডে ১৪২ জন, কুমিল্লা বোর্ডে ৯৪ জন, বরিশালে ৪২ জন, সিলেটে ৩৩ জন, যশোরে ১৩১ জন, চট্টগ্রামে ৮০, দিনাজপুরে ৫৫ জন এবং মাদ্রাসা বোর্ডে ৪৪ জন। নতুন করে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩৮ জন। বাকিদের বিভিন্ন গ্রেডে ফল পরিবর্তন হয়েছে। যশোর বোর্ডে একজন। এর মধ্যে ফেল থেকে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৬ জন।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে এবার ফল পরিবর্তন হয়েছে দুই হাজার ৮৩ শিক্ষার্থীর। এর মধ্যে ফেল থেকে পাস করেছে ১৪২ জন এবং নতুন করে জিপিএ ৫ পেয়েছে ২৩৭ জন। বাকিদের বিভিন্ন গ্রেডে ফল পরিবর্তন হয়েছে। এই বোর্ডে ৫৭ হাজার ৫৫৫ জন ফল পরিবর্তনের জন্য আবেদন করেছিল। তাদের উত্তরপত্রের সংখ্যা ছিল এক লাখ ৩৯ হাজার ৩৩১টি। এছাড়া চট্টগ্রামে ২ জন ও দিনাজপুরে ২ জন নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছে। প্রথম রেজাল্টে এরা ফেল করেছিল।

জানা যায়, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা মনে করেন ফল পুনর্নিরীক্ষণের অর্থ নতুন করে খাতা দেখা। কিন্তু বাস্তবে তা হয় না। ফল পুনর্নিরীক্ষণে সাধারণত চারটি দিক খেয়াল করা হয়। সব প্রশ্নের উত্তরে নম্বর সঠিকভাবে দেওয়া হয়েছে কি না, প্রাপ্ত নম্বর গণনা ঠিক হয়েছে কি না, প্রাপ্ত নম্বর ওএমআর (অপটিক্যাল মার্ক রিডার) শিটে তোলা হয়েছে কি না এবং নম্বর অনুযায়ী ওএমআর শিটের বৃত্ত ভরাট ঠিক আছে কি না। তবে উত্তরপত্র পুনরায় মূল্যায়ন করা হয় না। অর্থাৎ কোনো শিক্ষার্থী কোনো প্রশ্নে নম্বর কম বা বেশি পাবে কি না, তা দেখা হয় না।

এবারের এসএসসি ও সমমানের সাধারণ আট শিক্ষা বোর্ডসহ ১০ বোর্ডে উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৭ লাখ ৪৯ হাজার ১৬৫ জন। এর মধ্যে তিন লাখ ৬৯ হাজার খাতা পুনর্নিরীক্ষার জন্য আবেদন করেছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

5 × 1 =