Templates by BIGtheme NET
১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৩১ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৫ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী

বিড়ালের ঘাস খাওয়া নিয়ে গবেষণায় বের হয়ে এসেছে চমকপ্রদ তথ্য

প্রকাশের সময়: আগস্ট ২২, ২০১৯, ৯:১০ অপরাহ্ণ

গ্রামবাংলায় একটি প্রবাদ শোনা যায়, ‘ঠেলায় পড়লে বাঘ ধান খায়। কিন্তু যদি শোনেন বিড়াল ঘাস খায়, অবাক হবেন? যারা বিড়াল পোষেন তারা জানেন, তৃণভোজী প্রাণী না হয়েও মাঝে মাঝে বিড়াল ঘাস খায়। গবেষকদের দাবি অনুযায়ী, পেটে কোনো গোলযোগ দেখা দিলেই সবুজ ঘাস খায় কুকুর বা বিড়াল। তবে বিড়ালের ঘাস খাওয়া নিয়ে নতুন একটি গবেষণায় বের হয়ে এসেছে চমকপ্রদ তথ্য।

পরিপাকতন্ত্রে কোনো ধরনের গোলযোগ দেখা দিলে কুকুর-বিড়াল সবুজ ঘাস খেয়ে থাকে। ঘাস খাওয়ার পর তারা বমি করে থাকে এবং এর মাধ্যমে পরিপাকতন্ত্রের জটিলতা থেকে মুক্তি পায় তারা, এটিই এখন পর্যন্ত প্রতিষ্ঠিত মত।

বিজ্ঞান বিষয়ক প্রকাশনা সায়েন্স ম্যাগ জানায়, হাজারেরও অধিক বিড়াল নিয়ে নতুন একটি গবেষণায় ভিন্ন তথ্য বেরিয়ে এসেছে। টানা তিন দিন প্রযুক্তির মাধ্যমে সার্বক্ষণিক এসব বিড়ালের গতিবিধির নজর রেখে জানা যায়, ঘাস খাওয়া তাদের একটি সাধারণ খাদ্যাভ্যাস।

গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ঘাস খাওয়ার পর সব বিড়াল বমি করে না। তার মানে পরিপাকতন্ত্রে তাদের কোনো ধরনের ঝামেলা না থাকা সত্ত্বেও ঘাস খেয়ে থাকে তারা। ঘাস খাওয়ার পর মাত্র চার ভাগের এক ভাগ বিড়ালকে বমি করতে দেখা গিয়েছে।

নরওয়ের ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর অ্যাপ্লাইড ইথোলজির বার্ষিক সম্মেলনে গবেষণাটি উপস্থাপন করা হয়। সেখানে গবেষকরা বলেছেন, আদিকাল থেকেই বিড়ালের পূর্বপুরুষের এই খাদ্যাভ্যাস ছিল । যদিও বিবর্তনের ফলে সেই খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন ঘটে বিড়াল প্রজাতিতে। এরপরেও জিনগতভাবে সেটি এখনো থেকে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

19 − seven =