Templates by BIGtheme NET
২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, ১৬ ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ৩ রজব, ১৪৪১ হিজরী

পরিবর্তিত হচ্ছে পৃথিবীর সব দেশের ভাষা

প্রকাশের সময়: ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২০, ৩:৫৮ অপরাহ্ণ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বাংলা ভাষা প্রতিনিয়ত পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। রূপান্তর ঘটছে বহু শব্দ ও বাক্যের। এর ফলে ঠিক বাংলা ভাষার মতো পৃথিবীর অন্যান্য ভাষাতেও পরিবর্তন ঘটছে।

কথা চালাচালির সময় দশ কথার এক কথা হয়ে উঠছে নানান ধরনের ইমোটিকন ও ইমোজি। আবার অনেকেই কিছু লেখার সময় না জেনে করছেন বিচিত্র সব ভুল।

মানুষে মানুষে যে যোগাযোগ হয়, তার মধ্যে শরীরী ভাষার (বডি ল্যাঙ্গুয়েজ) ভূমিকা ৫৫ শতাংশ। মেসেজে কথা চালাচালির সময় শরীরী ভাষা হয়ে পড়ে নিষ্ক্রিয়। ফলে অন্যের কাছে আমাদের অনেক কথাই অপ্রকাশিত থেকে যায়।

কিন্তু মনের গহিনের কথা খুব সহজে প্রকাশ করতে ওস্তাদ ছোট্ট একটি ইমোজি। ফলে ইমোজির গুরুত্ব দিন দিন বেড়েই চলেছে। বিশ্বের বহু দেশে ছাপার অক্ষরে এদের ব্যবহার শুরু হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, সাধারণের চর্চায় ভালো–মন্দের বিচার হয় না। ফেসবুকে তো কোনো কিছু সম্পাদনা করে প্রকাশ করা হয় না। মানুষ এসব ক্ষেত্রে মুখের ভাষায় লেখে।

যেমন- কোনো একটা অবস্থা বর্ণনা করতে গিয়ে আমরা বলি ‘কি একটা অবস্থা’। সেটা এখন হয়ে গিয়েছে ‘কিএক্টাবস্থা’

চলতি ভাষা কোনো জনগোষ্ঠীর এজমালি সম্পত্তি। আর প্রমিত ভাষা বা অভিধান গোষ্ঠীর প্রয়োজনের জন্য তৈরি করা হয়। এভাবেই পৃথিবীর সব দেশে ভাষা পরিবর্তিত হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

one × three =