Templates by BIGtheme NET
২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, ১৬ ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ৩ রজব, ১৪৪১ হিজরী

দমে যাননি সাংবাদিকরা
হিটলারের শাসনকালে সত্য প্রকাশে যুদ্ধ

প্রকাশের সময়: ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০, ৪:৪১ অপরাহ্ণ

মানব সভ্যতার শুরু থেকেই চলে আসছে সত্য মিথ্যার দ্বন্দ্ব। যুগে যুগে বিভিন্ন দেশে এই দ্বন্দ্ব কখনো প্রকট আকার ধারণ করেছে।

১৯৪৫ সালের বিশ্বযুদ্ধে তেমনই প্রকট আকার ধারণ করেছিলো এই দ্বন্দ্ব। এই যুদ্ধের শুরু হয়েছিলো জার্মানের প্রেসিডেন্ট হিটলারের হাত ধরে। সে সময়ে জার্মানিতে ইহুদীদের গণহারে আটক ও হত্যা করা হচ্ছিল।

হিটলারের প্রচারণা বিষয়ক প্রধান জোসেফ গোয়েবলস সাংবাদিকদের উপর চাপ প্রয়োগ করতে থাকেন। ফলে এসব তথ্য সাংবাদিকদের কাছে স্বাভাবিক পথে আসতে পারছিল না।

তবে দমে যাননি সাংবাদিকরা। শত প্রতিকূলতার মাঝেও হিটলারের কৃতকর্ম সারা দুনিয়ার সামনে তুলে ধরার প্রাণপণ চেষ্টা করেছেন তারা।

শিকাগো ডেইলি নিউজের প্রতিনিধি হিসেবে জার্মানিতে কাজ করতেন সাংবাদিক এডগার মৌরার। তিনি এক জার্মান ইহুদী চিকিৎসকের কাছে রোগী সেজে দেখা করতেন। সেই চিকিৎসক কৌশলে এডগারের শার্টের পকেটে একটি কাগজ গুঁজে দিতেন। সেই কাগজে কোন কোন ইহুদীকে আটক করা হয়েছে, কেন আটক করা হয়েছে- সব তথ্যই তিনি লিখে দিতেন।

কিন্তু একসময় নজরদারি এত বাড়ানো হয় যে সেই কাজটিও ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। তখন এডগার ও সেই ইহুদী চিকিৎসক প্রতি সপ্তাহে একবার করে কোনো পাবলিক টয়লেটে দেখা করতেন।যাওয়ার সময় সবার অলক্ষ্যে চিকিৎসক একটি কাগজ ফেলে দিতেন। এডগার সেটি তুলে নিয়ে দুজন দুদিক দিয়ে বের হয়ে যেতেন।

এডগারের মতো এমন ঝুঁকিপূর্ণ পন্থা অবলম্বন করে তথ্য সংগ্রহ করেছেন আরও অনেক সাংবাদিক।

ওই সময় ম্যানচেস্টার গার্ডিয়ানসহ বেশ কয়েটি পত্রিকা জার্মানির বন্দীশিবিরগুলোতে কীভাবে সরকারবিরোধী ও ইহুদীদের নির্যাতন করা হতো সে সব তথ্য তুলে ধরে সংবাদ প্রকাশ করে।

সেখানে বলা হয়, কাউকে ১৮টি চাবুক মারার পরই অনেকে গোঙানো শুরু করতেন। কিন্তু এরপরও নাৎসি সেনারা থামতেন না। একদম অচেতন হওয়ার আগপর্যন্ত তারা চাবুক মারতেই থাকতেন।

আর এজন্য জার্মানি ছাড়তে হয়েছে অনেক সাংবাদিককে। কারণ প্রত্যেকের কাছে খবর ছিল হিটলারের গোয়েন্দারা তাদের হত্যা করতে পারেন।

বিশ্লেষকরা বলেন, ওই সময় সাংবাদিকদের আত্মত্যাগের কারণে আজকের বিশ্ব হিটলারের বর্বরতার সম্পর্কে সবাই জানতে পারছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

12 − nine =