Templates by BIGtheme NET
২৫ মে, ২০২০ ইং, ১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১ শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

করোনা প্রতিরোধে যন্ত্রদানব আবিস্কার দুই বাঙালির

প্রকাশের সময়: এপ্রিল ২, ২০২০, ৭:০৯ অপরাহ্ণ

গোটা বিশ্বের কাছেই এখন আতঙ্কের একটাই নাম ‘করোনাভাইরাস’। দেশে-দেশে মৃত্যুমিছিল। বাদ যাচ্ছে না বাংলাদেশও। ক্রমেই বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে করোনা প্রতিরোধে কাজ করে যাচ্ছেন বিশ্বের সব নামিদামি বিজ্ঞানীরা। ইতোমধ্যে করোনা প্রতিরোধে ভ্যাকসিন আবিস্কারের দাবি করেছে কয়েকটি দেশ। এবার করোনা প্রতিরোধে যন্ত্র আবিস্কার করেছেন ভারতের দুই বাঙালি বিজ্ঞানী। ইন্ডিয়া টুডে যাকে যন্ত্রদানব হিসেবে অবহিত করেছে। বিজ্ঞানীদের দাবি, বাতাসের মাধ্যমে করোনাভাইরাসের বিস্তার প্রতিরোধে এই যন্ত্র গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

যন্ত্রটি তৈরি করেছেন আইআইটি খড়্গপুরের ডা. দেবায়ন সাহা এবং এইমসের শশী রঞ্জন। যার নাম দিয়েছেন এয়ারলেন্স মাইনাস করোনা (Airlens Minus Corona)। দেখতে অনেকটা কিম্ভূতকিমাকার রোবটের মতো হলেও এই যন্ত্রটি করোনার বিস্তার ঠেকাতে দারুণ কাজে আসবে বলে বিশ্বাস তাদের।

প্রায় সাত ফুট উচ্চতার এই যন্ত্রটির মুখের ভিতরে রয়েছে একটি ফ্যান। রয়েছে ইনভার্টারের বেশ কিছু ব্যাটারি। যন্ত্রটির ভিতরে রয়েছে পানির ট্যাংক। গবেষকরা বলছেন, ব্যাটারির মাধ্যমে সেই ট্যাংকের পানি চার্জড হয়ে তা বেরিয়ে আসবে ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে। আর সেই পানিতেই নষ্ট হয়ে যাবে করোনাভাইরাস।

দেবায়ন ও শশী জানান, যন্ত্রটিতে থাকবে আয়নযুক্ত পানি, যা ফোঁটায় ফোঁটায় বেরিয়ে বাতাসকে পরিষ্কার করে তুলবে। এই পানির সংস্পর্শে এলেই ভাইরাসে থাকা প্রোটিন অকার্যকর হয়ে পড়বে। ফলে করোনার বিস্তার আর ঘটবে না। বাজার-ঘাট, বাসস্ট্যান্ড কিংবা হাসপাতালের মতো জায়গাগুলোতে বেশ উপকারী হতে পারে এয়ারলেন্স মাইনাস করোনা যন্ত্রটি।

এই যন্ত্রের ব্যবহার করে সুফল পেয়েছে ভিয়েতনামের মতো দেশ। এই যন্ত্র তৈরি করতে সময় লেগেছে মাত্র ৫ দিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

3 × two =